ঘুমিয়ে স্মরণশক্তি বাড়ান

স্বাস্থ্য ও মনোজগৎ

সাধারণত মানুষের স্মরণশক্তি বৃদ্ধির জন্য পুষ্টিকর খাবার ও মস্তিষ্কের কার্যকর ব্যবহারের কথা আমরা শুনে আসছি। কিন্তু বিজ্ঞানীরা এখন বলছে, ঘুমিয়ে আপনি আপনার মস্তিষ্কের স্মরণশক্তি বৃদ্ধি করতে পারেন। তবে এ কথা শুনে সারাদিন শুধু ঘুমালে হবে না। কিছু নিয়ম কানুন ও পদ্ধতি মেনে চলে সঠিক কায়দায় ঘুমালে আপনি সফলতা পেতে পারেন। আসুন জেনে সে সকল কায়দা কানুনগুলো-

শব্দ শুনতে শুনতে ঘুমান:

সাধারণত নিম্ন তরঙ্গ দৈর্ঘে্যর শব্দ যেমন ঝর্ণার শব্দ বা বৃষ্টির শব্দ শুনতে শুনতে ঘুমালে আপনার মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে। তবে সবসময় আপনি ঝর্ণার শব্দ বা বৃষ্টির শব্দ পাবেন না, এক্ষেত্রে আপনি ঘুমানোর সময় এ জাতীয় ধারণকৃত (recorded) শব্দ আপনার স্পীকারে অথবা মোবাইলে চালিয়ে রাখতে পারেন। এতে করে আপনার স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে।

ঘুমের মধ্যে সুবাস নিন:

আমরা রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময়  মাছ ভাজার ঘ্রাণ পেলে যেমন সাথে সাথে আমাদের রান্নাঘরে মায়ের কথা মনে পড়ে যায়। তেমনি আপনি কোন বিষয়ে পড়ার সময়  যদি কোন সুবাস আপনার নাকে ঢুকে আর সেই সুঘ্রাণটা যদি আপনার ঘুমানোর সময় আপনার চারপাশে ছড়িয়ে দেয়া যায়, তাহলে আপনার পড়াটা মনে থাকবে বেশি।

ঘুমানোর আগে পড়ুন:

আপনার যে বিষয়ের পড়াটা মনে রাখা প্রয়োজন সে বিষয়টা ঘুমাতে যাওয়ার ঠিক আগে পড়ুন। আবার এমনও  হতে পারে, আপনি আগে কোন পড়া পড়েছেন তা ঘুমাতে যাওয়ার আগে একটু স্মরণ করার চেষ্টা করুন। যে বিষয়টা আপনি মনে রাখতে চাচ্ছেন সে বিষয়টা সহজে মনে রাখতে পারবেন।

দিনে খাদ্য গ্রহন করুন, রাতে ঘুমান:

সারাদিন আপনি খাদ্য গ্রহণ করুন আর রাতে যত তাড়াতাড়ি পারেন ঘুমানোর চেষ্টা করুন। কারণ আমাদের শরীর দিনের বেলা খাদ্য গ্রহণ ও রাতে ঘুমানোর মতো করে তৈরি করা হয়েছে। যথাসম্ভব দিনের বেলায় ভারী খাবার গ্রহণ করুন আর রাতের বেলায় হালকা খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ুন, এতে আপনার স্মরণশক্তি বৃদ্ধি পাবে।

সাত ঘন্টা ঘুমান:

নিয়মিত ঘুম আমাদের মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে। তবে দৈনিক সাত ঘন্টা ঘুমালে আমাদের স্মরনশক্তি বাড়ে। তবে আপনি যদি সাত ঘন্টার বেশি ঘুমান সেক্ষেত্রে উল্টো ফল হবার সম্ভাবনা আছে আর ঘুম সাত ঘন্টার কম হলে তো আপনার দৈনন্দিন স্বাভাবিক কাজকর্ম করতে কষ্ট হবে।

সূত্র: https://www.rd.com